ফাইন্যান্স কি সবার জন্য? | ABP
logo

ABP

Populate the sidearea with useful widgets. It’s simple to add images, categories, latest post, social media icon links, tag clouds, and more.
hello@youremail.com
+1234567890
ABP - Academy of Business Professionals
 

ফাইন্যান্স কি সবার জন্য?

ফাইন্যান্স কি সবার জন্য?

আমি ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টে কাজ করি না, ফাইন্যান্স শিখে আমি কি করবো! আপনি কি এই কথাটির সাথে একমত?
.
আপনি হয়তো এইচ আর, সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট, আইটি বা অন্য যেকোনো নন ফাইন্যান্সিয়াল ডিপার্টমেন্টে কাজ করতে পারেন, এবং ফাইন্যান্সিয়াল লিটারেসি থাকার প্রয়োজনীয়তা আপনি অনুভব নাই করতে পারেন। কিন্তু হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের একটি গবেষণা থেকে যা জানা যায় তা হলো, ফাইন্যান্স একটি অর্গানাইজেশনের প্রত্যেকটি আলাদা আলাদা ব্যক্তিকে প্রভাবিত করে। একটি অর্গানাইজেশনের সামগ্রিক অবস্থানের সাথে কমিউনিকেশন অব্যাহত রেখে ব্যাখা করে যে

i) কীভাবে একজন ব্যক্তির কার্যকলাপ কোম্পানির সাফল্যকে প্রভাবিত করে,
ii) অর্গানাইজেশনের ভবিষ্যৎ লক্ষ্য এবং লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্যে সহায়ক গাইডলাইন তৈরি করে
iii) এবং সব ডিপার্টমেন্টের পারফরম্যান্স নির্ণয় করার জন্যে অর্থপূর্ণ ম্যাট্রিক্স ঠিক করে।
.
এটা খুবই পরিস্কার যে ফাইন্যান্সিয়াল লিটারেসি ডেভেলপ করার জন্যে কিছু সময় ইনভেস্ট করা আপনাকে নানানভাবে উপকৃত করতে পারে। নীচে ৬টি প্রধান সুবিধা উল্লেখ করা হলো যা আপনি ফাইন্যান্সএর গভীর জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে উপলব্ধি করতে পারেন, পাশাপাশি রয়েছে তিনটি কার্যকরী টিপস যা আপনি সেই স্কিলসগুলো নিজের মধ্যে বিল্ডাপ করতে ব্যবহার করতে পারেন।

ফাইন্যান্স বুঝার ৬ টি প্রধান সুবিধাঃ

১. নিজ ডিপার্টমেন্টের পারফরম্যান্স এনালাইজ করতে পারা

২. আপনার নিজের কাজের ফাইন্যান্সিয়াল ইমপ্যাক্টকে তুলে ধরতে পারা

৩. ভিন্ন ডিপার্টমেন্টে কাজ করেও ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের সাথে কো অর্ডিনেটেড ডিসিশন মেকিংয়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা।

৪. সত্যিকার অর্থেই যেসব কর্মী বা যেসকল সার্ভিস অথবা প্রোডাক্ট কোম্পানির ভ্যালু এড করছে তা চিহ্নিত করতে পারা।

৫. বিভিন্নরকমের ফাইন্যান্সিয়াল ডেটা বা সিগন্যালকে বুঝার মাধ্যমে প্রকৃত ইনফরমেশনগুলো ইন্টারপ্রেট করার দক্ষতা অর্জন করা

৬. এবং সবশেষে ক্যাপিটাল মার্কেট ও ইনভেস্টমেন্ট স্ট্র্যাটেজি বুঝতে পারা

এখন প্রশ্ন হলো আপনি কিভাবে এই সব ফাইন্যান্সিয়াল লিটারেসি বিল্ডাপ করবেন? উপায়গুলো হচ্ছেঃ

১. বেশি বেশি ফাইন্যান্স রিলেটেড বই, আর্টিকেল এবং ওয়েবসাইটগুলো নিয়ে ঘাটাঘাটি করা

২. চাকরিক্ষেত্রেই ফাইন্যান্স রিলেটেড কাজগুলোর সাথে নিজেকে জড়িয়ে ফেলা, যেনো এই ফাইন্যান্স অর্গানাইজেশনে কিভাবে ইমপ্যাক্ট করছে তা বুঝতে পারা আপনার জন্যে সহজ হয়

৩. এবং সর্বশেষে একটি ফাইন্যান্স রিলেটেড কোর্সে এনরোল করা।

অন্য ডিপার্টমেন্টে কাজ করছি বলে ফিন্যান্সকে দূরে সরিয়ে রাখার কোনো মানে নেই, বরং ফিন্যান্সিয়াল লিটারেসিকে আপন করে নেয়াটা হতে পারে আপনার এবং আপনার অর্গানাইজেশনের সাকসেস সিক্রেট।

Sagar islam